‘অল্প বয়সী ছেলেরা বেশি পতিতালয়ে যাচ্ছে’

অল্প বয়সী ছেলেরা বেশি পতিতালয়ে যাচ্ছে। পতিতালয়ের ৪৩ শতাংশ নারী এই পেশায় নিয়োজিত হওয়ার আগে যৌন হয়রানির শিকার হয়। আর যৌন হয়রানির শিকার ৪৯ শতাংশই হচ্ছে শিশু। মঙ্গলবার জাতিসংঘ শিশু তহবিলের এক গবেষণা প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

রাজধানীর স্পেকট্রা কনভেনশন সেন্টারে শিশুদের ওপর যৌন হয়রানি ও বাণিজ্যিক নির্যাতন: জাতীয় কৌশল ও কর্ম পরিকল্পনা’ সম্পর্কিত জরিপের ফল আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রকাশ করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন।
ইউনিসেফের উপ প্রতিনিধি মিশেল সেন্ট-লটের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন শিশু সুরক্ষা বিভাগের প্রধান রোজ অ্যান পাপাভেরো ও শিশু তহবিলের গবেষক থেরেসা ব্লাঁশে।
জরিপে বলা হয়, যৌন হয়রানি ও নির্যাতনের পর বেশি নজর দেওয়া হয়ে থাকে পরিবারের প্রতি। অথচ শিশু বা নারীকে তার বেদনা লাঘবে সহায়তা দেওয়ার পরিবর্তে বিষয়টি গোপন রাখতে বলা হয়।
নির্যাতনের বিষয়টি যর্থাথভাবে বিবেচিত হয়না। জরিপে কিশোরীদের যৌন হয়রানির ভীতিকর দিকহ তুলে ধরা হয়েছে।
প্রতিবেদনে বলা হয়, পতিতালয়ে শিশু যৌন হয়রানি ও নির্যাতনের মূলে রয়েছে বৈষম্যমূলক সামাজিক ব্যবস্থা।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন বলেন, ‘যেকোনো মূল্যে শিশু নির্যাতন বন্ধ করতে হবে। এজন্য ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নিতে হবে। নির্যাতনের শিকার শিশুরা যাতে বিচার পায় তার ব্যবস্থা করতে হবে।’
তিনি বলেন, ‘নির্যাতনের শিকার নারী ও শিশুকে সহায়তা দিতে ভিকটিম সার্পোট সেন্টার সারা দেশে চালু করতে হবে।’
মিশেল সেন্ট-লট বলেন, ‘সমাজ ব্যবস্থার কারণে নির্যাতনের শিকার শিশু ও নারীরা আরও হয়রানির শিকার হয়ে থাকেন। শিশু নির্যাতন বন্ধে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।’
তিনি বলেন, ‘ঝুঁকিতে থাকা শিশুদের তাৎক্ষণিক যত্ন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। ভুক্তভোগীদের সার্বিক সহায়তা দিতে হবে যাতে তারা সুস্থ জীবন যাপন করতে পারে। এজন্য সমন্বিত উদ্যোগ নিতে হবে।’
জরিপটি করা হয়েছে ঢাকাসহ ১০ টি শহরের শিশুদের ওপর। জরিপে দেড় শতাধিক যৌন হয়রানির শিকার শিশুর কথা তুলে ধরা হয়েছে। প্রায় ছয়মাস এই জরিপ চালায় ইউনিসেফ।
বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

0 comments

Write Down Your Responses

Thank you for your comment

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...
Powered by Blogger.