সাইফ-কারিনার বিয়ে অবৈধ

বলিউডের হাইপ্রোফাইল বিয়ে নিয়ে যখন গোটা বলিউডে হৈ হুল্লোড় চলছে ঠিক সেই সময়ই সাইফ আালি খান পতৌাদি ও কারিনা কাপুরের বিয়ে ইসলামি মতে অবৈধ বলে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। ভারতের প্রধান ইসলামি ধমীয় প্রতিষ্ঠান দেওবন্ধ থেকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে যে, পতৌদির নবাবের এই শাহী বিয়ে অবৈধ এবং ইসলামবিরোধী। গত ১৬ই অক্টোবর সাইফ ও কারিনার বিয়ে নিবন্ধিত হয়েছে। এর পর নিকাও সম্পূর্ণ হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে কাপুর পরিবারের ঘনিষ্ট ও ফ্যাশন ডিজাইনার মনীশ মালহোত্রা জানিয়েছেন
, ঠিক নিকা বলতে যা বোঝায় তা হয়নি। বর ও পাত্রী দুজনে শপথ নিয়েছেন মাত্র। তবে দেওবন্ধের মতে, ইসলামি আইন অনুয়ায়ী এই বিয়ে সম্পন্ন হয়নি। বিয়ের আগে কারিনার ইসলাম ধর্মে ধর্মাান্তরিত না হওয়াকেই বড় অন্যায় বলে মনে করছেন দেওবন্দের প্রবীণ মৌলভী হবিবুর রহমান। তিনি জানিয়েছেন, ইসলাম এই বিয়েকে কোনভাবেই অনুমোদন করে না। অবশ্য শর্মিলা ঠাকুর যখন পতৌদির নবাব মনসুর আলি খানকে বিয়ে করেছিলেন তখন শর্মিলা নিয়ম মেনে ধর্মান্তরিত হয়েছিলেন। তার নাম হয়েছিল আয়েশা। তবে পতৌদি খানদানের এই বিয়েতে এসব কিছুই হয়নি। শোনা গেছে, কারিনা ইসলাম ধর্মমতে ধর্মান্তরিত হতে আপত্তি জানিয়েছেন। বরং তিনি খ্রীস্টান মতেই আংটি বদল করেছেন। কারিনার মা ববিতা খ্রীস্টান ধর্মের অনুসারি। বাবা রনধীর কাপুর হিন্দু হলেও কারিনা ছোটবেলা থেকেই খ্রীস্টান ধর্মমত মেনে চলেছেন। কারিনা নিয়মিত চার্চেও যান। অন্যদিকে নবাব পরিবার ইসলামি নিয়ম কানুন মেনে চলেন।

0 comments

Write Down Your Responses

Thank you for your comment

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...
Powered by Blogger.