নিজেকেই বিয়ে করলেন যুক্তরাষ্ট্রের এক নারী

কোন ছেলেকে বিয়ে করলে স্বাধীনভাবে চলতে পারবেন না এমন আশঙ্কায় নিজেকেই বিয়ে করলেন যুক্তরাষ্ট্রের এক নারী। ৩৬ বয়সী এই নারীর নাম নাদিন। এমনকি বিরল এই বিয়ে অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা উপহার নিয়ে ৪০ জন অতিথিও উপস্থিত ছিলেন বলে জানিয়েছে ইয়াহু টিভি।

ব্যতিক্রমী এ বিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমগুলোতে বেশ সারা ফেলেছে। তবে নাদিন বলেন, শিরোনাম হওয়ার জন্য তিনি ঘটনা ঘটান নি।নাদিন বলেন, আমার জীবন একটি সুন্দর
পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে এগিয়েছে, এবং এখন আমি অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী ও সুখী। আমার জীবনের এ পরিবর্তনের অঙ্গীকারটি সবার সঙ্গে উদযাপন করতে চাই।

গত ছয় বছর আগে স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ ও দুই সন্তান তাদের বাবার কাছে চলে যাওয়ার ঘটনা নাদিনের জীবনে বেশ যন্ত্রণাদায়ক ছিলো বলে জানান তিনি। এরপর তিনি অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন করতে থাকেন। নাদিন বলেন, ছয় বছর আগে আমি মদ ও ধূমপানের মধ্যে ডুবে থেকে সবকিছু ভুলে থাকার চেষ্টা করতাম। আমার ওজন প্রায় ২৩ কেজি (৫০ পাউন্ড) বেড়ে গিয়েছিলো। কিন্তু এখন আমার জীবন অনেক নিয়ন্ত্রিত।

নিজেকে সময় দেওয়া, বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটানো উপভোগ করেন নাদিন। তাই এখন নিজের জীবন পরিপূর্ণ করতে অন্য কারো জন্য অপেক্ষা করছেন না বলে জানান তিনি। এর আগে ২০১০ সালের নভেম্বরে তাইওয়ানের নারীদের উপর বিয়ে করার জন্য সামাজিক চাপের প্রতিবাদ জানিয়ে নিজেকেই বিয়ে করেন চেন ওয়েই-ই। দেশটির জনসংখ্যা বৃদ্ধির স্বল্পহারের কারণে ওইসময় বিয়ে ও সন্তানগ্রহণের ব্যাপারে উৎসাহিত করতে প্রচারণা শুরু করেছিলো সরকার।

0 comments

Write Down Your Responses

Thank you for your comment

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...
Powered by Blogger.