জামালপুরে গার্মেন্টসকর্মীকে চার বন্ধু মিলে রাতভর পালাক্রমে..

জামালপুরের ইসলামপুরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক গার্মেন্টসকর্মীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। হাফিজুর রহমান নামের এক বখাটে যুবক ও তার বন্ধুরা মিলে ওই গার্মেন্টসকর্মীকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।
শনিবার দুপুরে পুলিশ ভিকটিমকে উদ্ধার করে ইসলামপুর থানায় হেফাজতে নিয়েছে।এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ফেনি জেলার মেয়ে ঢাকায় একটি গার্মেন্টকর্মী
হিসাবে চাকুরী করতেন।
 ইসলামপুর উপজেলার চরগোয়লিনী ইউনিয়নের পূর্ব কান্দারচরের হাফিজুর রহমানের সঙ্গে মেয়েটির দীর্ঘ দিন ধরে ঢাকায় প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। শুক্রবার বিয়ের কথা বলে হাফিজুর ওই গার্মেন্টসকর্মীকে নিজ গ্রামে নিয়ে আসে।
শুক্রবার দিবাগত রাতে চরযমুনা নদীর নির্জন দ্বীপে নিয়ে তারা চার বন্ধু মিলে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে চলে যায়।
সকালে স্থানীয় গ্রামবাসী ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে স্থানীয় আনন্দবাজারে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়।
পুলিশ খবর পয়ে শনিবার দুপুরে আনন্দবাজার থেকে ধর্ষিতাকে থানায় নিয়ে আসে।
ইসলামপুর থানার ওসি কাজী সাইদুর রহমান বলেন, মেয়েটি বাদি হয়ে হাফিজুরকে প্রধান আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ হাফিজুর ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চালাচ্ছেন।

Powered by Blogger.